পাইকারিতে পেঁয়াজের দাম কমলেও খুচরা বাজারে চড়া!

গত বেশ কিছুদিন ধরে পেঁয়াজের ঝাঁজে নাজেহাল দেশবাসী। নিম্ন আয়ের মানুষের নাগালের বাইরে পণ্যটির দাম। কর্তৃপক্ষ বেশ কিছু দিন ধরে দাম কমানোর আশারবাণী শুনালেও তা সম্ভব হয়নি। তবে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কমলেও এর প্রভাব এখনও পড়েনি খুচরা বাজারে। প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৩০ থেকে ১৫০ টাকায়।

পাইকারি বাজার ঘুরে জানা গেছে, গত সপ্তাহের তুলনায় কেজিতে প্রায় ১৫ থেকে ১৬ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম। তবে খুচরা বাজারে এখনও সেই আগের চড়া মূল্যেই বিক্রি হচ্ছে।

শনিবার (২ নভেম্বর) রাজধানীর শ্যামবাজারে এ চিত্র দেখা গেছে। পেঁয়াজের ব্যবসায়ীরা বলছেন, এখন থেকে পেঁয়াজের দাম কমতে থাকবে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম একশ টাকার নিচে চলে আসবে। পেঁয়াজের আমদানি বাড়ায় কমছে দাম। গত বৃহস্পতিবার দেশি পেঁয়াজ প্রতিকেজি বিক্রি হয়েছে ১১৫ থেকে ১১৬ টাকায়। সেই পেঁয়াজ আজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১০৩ টাকায়। গত সপ্তাহের তুলনায় দাম কমেছে ১৫ থেকে ১৬ টাকা।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পেঁয়াজ মূলত আমদানি ওপর নির্ভরশীল। বেশি দরে আমদানি করলে বেশি দরেই বিক্রি করতে হয়। এ মৌসুমে পেঁয়াজ কেজিপ্রতি সর্বোচ্চ ১১৮ থেকে ১১৯ টাকায় বিক্রি করেছি। অথচ খুচরা বাজারে দাম বেশি।

বিভিন্ন আড়তে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দেশি ভালো পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ১০৫ থেকে ১১০ টাকায়। বার্মিজ পেঁয়াজও প্রায় সমান দামেই বিক্রি হচ্ছে।

খুচরা ব্যবসায়ীরা বলেন, পাইকারি বাজারে এখন যে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে তা এখনও খুচরা বাজারে আসেনি। এখন খুচরা বাজারে যে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে তা বেশি দামে কেনা বলে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে।

SHARE